৭ শ্রাবণ ১৪২৫, রবিবার ২২ জুলাই ২০১৮, ৮:৪৩ পূর্বাহ্ণ
bangla fonts
facebook twitter google plus rss
Natun Somoy logo

সাবেক ফরাসি প্রেসিডেন্ট আটক


২০ মার্চ ২০১৮ মঙ্গলবার, ০৮:৩০  পিএম

নতুনসময়.কম


সাবেক ফরাসি প্রেসিডেন্ট আটক

সাবেক ফরাসি প্রেসিডেন্ট নিকোলাস সারকোজিকে আটক করেছে দেশটির পুলিশ। লিবিয়ার প্রয়াত নেতা মুয়াম্মার গাদ্দাফির কাছ থেকে নির্বাচনী প্রচারণার জন্য অর্থ নিয়েছিলেন সারকোজি এমন অভিযোগ ওঠার পর এই পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

ফ্রান্সের আদালতের একটি জানাচ্ছে, নির্বাচনী প্রচারণার অর্থায়ন নিয়ে ‘দুর্নীতির’ ঘটনায় সারকোজিকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

অভিযোগ উঠেছে, সারকোজি তার নির্বাচনী প্রচারণার জন্য মুয়াম্মার গাদ্দাফির কাছ থেকে ৫০ মিলিয়ন ইউরো নিয়েছিলেন। গাদ্দাফির ছেলে ও ফরাসি ব্যবসা জিয়াদ তাকিয়েদদিনে সারকোজির বিরুদ্ধে এ অভিযোগ তোলেন।

সারকোজি নির্ধারিত নির্বাচনী খরচ ২১ মিলিয়ন ইউরোর চেয়ে প্রায় দ্বিগুণ অর্থ খরচ করেছিলেন।
এছাড়া প্রচারণায় ব্যবহৃত অর্থের উৎস নিয়েও ফরাসি আইন ভঙ্গ করেছেন বলে সারকোজির বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে।

যদিও সারকোজি ও তার ক্যাম্পেইন ম্যানেজার এ ধরনের অভিযোগ শুরু থেকেই অস্বীকার করে আসছেন।
এদিকে এ সংক্রান্ত অভিযোগ ওঠার পর এই প্রথমবারের মতো জিজ্ঞাসাবাদের মুখোমুখি হলেন সারকোজি। তবে এই অভিযোগের তদন্ত শুরু হয় ২০১৩ সালের এপ্রিল মাসে।

সারকোজিকে ৪৮ ঘণ্টার জন্য আটকে রাখা হতে পারে। অন্য একটি মামলায় আগে থেকে বিচারের মুখোমুখি হয়েছেন সারকোজি।

এর আগে ২০১১ সালে গাদ্দাফির ছেলে সাইফ আল ইসলাম গাদ্দাফি বলেন, নির্বাচনী প্রচারণার জন্য সারকোজি যে টাকা নিয়েছিলেন তা ফেরত দিতে হবে। আর ফরাসি ব্যবসায়ী তাকিয়েদদিনে দাবি করেছেন, ২০০৬ ও ২০০৭ সালের মধ্যে তিনি টাকা ভর্তি তিনটি সুটকেস সারকোজির কাছে পৌঁছে দিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, ২০০৭ থেকে ২০১২ সাল ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ছিলেন সারকোজি।

মুসা

নতুনসময়.কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন: