৩ পৌষ ১৪২৪, সোমবার ১৮ ডিসেম্বর ২০১৭, ৯:১৩ পূর্বাহ্ণ
bangla fonts
facebook twitter google plus rss
Natun Somoy logo

হরিণাকুণ্ডতে সড়ক নির্মাণে অনিয়ম


১২ আগস্ট ২০১৭ শনিবার, ০৯:৩২  পিএম

নতুনসময়.কম


হরিণাকুণ্ডতে সড়ক নির্মাণে অনিয়ম

ঝিনাইদহ হরিণাকুণ্ড ভায়া ভালকী বাজার সড়ক নির্মাণে অনিয়মের বিষয়টি সরেজমিনে উঠে এসেছে। ৪৫ কোটি টাকা ব্যয়ে সড়ক নির্মাণ কাজের অনিয়মের অভিযোগে পর সরেজমিনে হরিণাকুণ্ড উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মনিরা পারভিন অভিযোগের সত্যতা পান।

পরে কাজে অনিয়মের অভিযোগের সত্যতা মিলায় কাজ বন্ধ করে দেন তিনি। উপজেলা নির্বাহী অফিসার সংবাদ কর্মীদের বলেন, হরিণাকুণ্ডর ইউপি চেয়ারম্যানদের অভিযোগের ভিত্তিতে অনিয়ম তদন্তে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

কমিটি রাস্তাটি সরেজমিন তদন্ত করে অনিয়মের সত্যতা পাওয়ায় ঠিকাদারকে কাজ বন্ধ রাখতে বলা হয়েছে।

পরে শনিবার হরিণাকুণ্ডর মথুরাপুর স্কুলে এক সমঝোতা সভায় ঠিকাদার ও সওজ কর্মকর্তারা ভুল স্বীকার করলে আবারো সড়ক নির্মাণ কাজ শুরু করার অনুমতি দেন।

ঝিনাইদহ সড়ক বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী সেলিম আজাদ খান জানান, ঝিনাইদহ শহরের চাকলাপাড়া থেকে হরিণাকুণ্ড হাসপাতাল মোড় পর্যন্ত ২১.১৬৪ কিলোমিটার সড়টি চলাচল অনুপযোগি হওয়ায় টেন্ডারের মাধ্যমে কাজ শুরু হয়েছে।

বিভিন্ন গ্রুপে প্রায় ৪৫কোটি টাকা ব্যয়ে সড়কটি নির্মাণ করছেন আলমডাঙ্গার মল্লিকপুর এলাকার ঠিকাদার জহুরুল ইসলাম। তার কাছে জানতে চাইলে তিনি সড়কে নির্মাণে অনিয়ম অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন তার কেউ কাজও বন্ধ করেনি।

স্থানীয়দের অভিযোগ, সড়কটিতে নির্মাণ কাজ শুরুর পর থেকেই নিম্নমানের সামগ্রী ও সিডিউল মোতাবেক কাজ হচ্ছে না। ফলে ঝিনাইদহ এলজিইডি ভবনের পাশের অংশের কাজ সাবেক কমিনার তারিক বন্ধ করে দেন।

এদিকে হরিণাকুণ্ড উপজেলার ইউপি চেয়ারম্যানরা ১০আগষ্ট সমন্বয় কমিটির সভায় নিম্নমানের কাজ করার অভিযোগ করেন। নির্মাণ কাজ সুষ্ঠভাবে সম্পন্ন করতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে প্রধান করে একটি তদন্ত কমিটিও গঠন করা হয়।

কমিটির সদস্যরা হলেন, উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি এম সাইফুজাজ্জামান তাজু, উপজেলা কৃষি অফিসার আরশাদ আলী, ইউপি চেয়ারম্যান মশিয়ার রহমান জোয়ারদার, ফজলুর রহমান ও গোলাম মোস্তফা।

কমিটির সদস্য কাপাশহাটিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মশিয়ার রহমান জোয়ারদার বলেন, আমরা কাজের সিডিউল দেখে জানতে পারলাম পারমথুরাপুর নামক স্থানে রাস্তার কাজ অনিয়মের মাধ্যমে করা হচ্ছিল। সড়ক প্রসস্থ করণ ও গভীরতা কম করা হচ্ছিল। সিডিউল মোতাবেক সিলকোট বা আনুসঙ্গিক কাজ করা হচ্ছিল না।

ঠিকাদার ও সওজের কর্মকর্তারা তাদের ভুল স্বীকার করে সঠিকভাবে কাজ করার আশ্বাস দিলে আমরা পুণরায় কাজ করার অনুমতি দিয়েছি।

কমিটির অপর সদস্য উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি এম সাইফুজাজ্জামান তাজু জানান, রাস্তাটির নির্মাণ কাজ সরেজমিন পরিদর্শন করে আমরা অনিয়মের সত্যতা পেয়ে বৃহস্পতিবার কাজ বন্ধ করে দিই।

শনিবার এক সমঝোতা বৈঠকে সুষ্ঠ ও নিয়ম মাফিক কাজ করার প্রতিশ্রুতি দিলে ঠিকাদার আবার কাজ শুরু করেন।

এসব বিষয়ে ঝিনাইদহ সওজের নির্বাহী প্রকৌশলী সেলিম আজাদ খান বলেন, সওজের এসডি ও এসও শনিবারের সভায় উপস্থিত ছিলেন। আমাদের কোনো ভুল নেই। তিনি বলেন, হরিণাকুণ্ড উপজেলা সমন্বয় কমিটি যদি তদন্ত করে অনিয়ম পায় তবে আমরা ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

নতুনসময়.কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন: