৮ অগ্রাহায়ণ ১৪২৪, বৃহস্পতিবার ২৩ নভেম্বর ২০১৭, ৪:১২ পূর্বাহ্ণ
bangla fonts
facebook twitter google plus rss
Natun Somoy logo

সব কাজই হবে সময়মতো


১৩ নভেম্বর ২০১৭ সোমবার, ০৯:১৭  এএম

নতুনসময়.কম


সব কাজই হবে সময়মতো

সকালটা শুরু হয় হুড়োহুড়িতে। নাশতা তৈরির পর স্নান সেরে তৈরি হতে হয় কর্মক্ষেত্রে যাওয়ার জন্য। যাওয়ার পথে স্কুলে ছেড়ে যেতে হয় সন্তানদের। তারপর পুরো দিনটি যায় কাজের মধ্যে। কিন্তু কাজের তালিকার চেয়ে যেন সময়টা বড্ড কম। যদি আপনি সারা দিনের কাজগুলো সময় ও গুরুত্ব অনুযায়ী ভাগ করে নিতে পারেন, তবে চাপ কমে আসবে অনেকটাই।

অগ্রাধিকার

২৪ ঘণ্টায় ঘুম বাদে বাকি যে সময়টা রয়েছে, তাকে মনে মনে ভাগ করুন কত সময় আপনি কর্মক্ষেত্রে দিচ্ছেন ও কতটা সময় বাড়িতে। এরপর দৈনন্দিন রুটিনের বাইরে হুট করে কোনো কাজ চলে এলে অগ্রাধিকারের ভিত্তিকে কাজগুলো সম্পন্ন করুন। কিছু গুরুত্বপূর্ণ কাজ রয়েছে, যা সঠিক সময়েই করতে হবে। সেক্ষেত্রে অফিসে যাবার আগে বা লাঞ্চ ব্রেকে সেরে ফেলতে পারেন। আবার কিছু কাজ গুরুত্বপূর্ণ কিন্তু আপনি চাইলে নিজে না করে অন্য কাউকে দিয়ে করাতে পারেন। সেক্ষেত্রে কারো সাহায্য নিন। আবার সব সময় এমন কিছু কাজ পড়েই থাকে, যা করি করি করে করা হচ্ছে না। সেক্ষেত্রে একসঙ্গে কিছু কাজ জমিয়ে ছুটির দিনে একে একে সম্পন্ন করুন।

না বলতে শিখুন

যদিও আপনি একগাদা কাজ নিয়ে ডুবে রয়েছেন কিন্তু কোনো একটি বিশেষ দায়িত্ব পালনের অনুরোধ নিয়ে কেউ এলে তাকে উপেক্ষা করতে পারছেন না। সেক্ষেত্রে চাপ নেবেন না। যদি করা সম্ভব হয়, তাহলে তো ভালো আর না পারলে বিনয়ের সঙ্গে বুঝিয়ে বলুন আপনি এত ব্যস্ততার মাঝে তা করতে অপারগ।

পরিকল্পনা

দিনের শেষে মাত্র ১৫ মিনিট সময় নিন পরের দিনের কাজগুলোর তালিকা তৈরি করতে। শোবার ঘরে বসেই কাজটি সেরে নিতে পারেন। ছেলেমেয়ে স্কুলে আনা নেয়া, অফিস, বাজার করা, বিল পরিশোধ, রোগী দেখতে যাওয়া, পার্লার বা বাকি যা যা কাজ রয়েছে তা কোন সময় কীভাবে করা যায় তা লিখুন। সকালবেলা এ তালিকায় চোখ বুলিয়ে নিন ও সে অনুযায়ী কাজ সম্পন্ন করার পর, দেখবেন অনেকটাই হালকাবোধ হচ্ছে ও কাজগুলোও একে একে শেষ হয়েছে ভালোভাবেই।

নতুনসময়.কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন: