৪ কার্তিক ১৪২৪, বৃহস্পতিবার ১৯ অক্টোবর ২০১৭, ৩:০৬ অপরাহ্ণ
bangla fonts
facebook twitter google plus rss
Natun Somoy logo

ভোলায় সজীব ওয়াজেদ জয় ডিজিটাল পার্ক


০৮ অক্টোবর ২০১৭ রবিবার, ০৩:৫৬  পিএম

নতুনসময়.কম


ভোলায় সজীব ওয়াজেদ জয় ডিজিটাল পার্ক
লালমোহনে সজীব ওয়াজেদ জয় ডিজিটাল পার্কের একাংশ

ভোলা জেলায় বিনোদনের নতুন মাত্রা যোগ হয়েছে সজীব ওয়াজেদ জয় ডিজিটাল পার্ক। লালমোহন পৌরসভার ৬ নং ওয়ার্ডের সরকারি শাহাবাজপুর কলেজ মাঠে ৭ কোটি টাকা ব্যয়ে প্রায় ৩ একর জমির উপর পার্কটি স্থাপন করা হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছেলের নামে পার্কটিতে দেশের সবচেয়ে বড় এলইডি টিভি, ফ্রি ওয়াইফাই সুবিধা, রেলগাড়ি, নাগরদোলাসহ ২৬টি রাইডস রয়েছে। প্রযুক্তি নির্ভর, দৃষ্টিনন্দন ডিজিটাল পার্কটিতে প্রতিদিন হাজার হাজার দর্শনার্থীরা ভিড় করে। প্রতিদিন বিকেল থেকে রাত পর্যন্ত পার্কটি সকলের জন্য উন্মোক্ত থাকে।

এ বছর ১৬ মার্চ বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ লালমোহন সজীব ওয়াজেদ জয় পৌর ডিজিটাল পার্কটির উদ্বোধন করেন।

সরেজমিনে পার্কে গিয়ে দেখা যায়, বিশাল মাঠের চারপাশে ওয়াকওয়ে তৈরি করা হয়েছে। পাশের পুকুরের উন্নয়ন করে সৌন্দর্য্যমণ্ডিত করা হয়েছে। তবে সন্ধ্যার পরে বাহারি আলোয় রং ছড়ায় পার্কটিতে। লাল-নীল আলোয় মায়াবী রুপ নেয় ডিজিটাল পার্কে। বিকেল হলেই দল বেধে হাটার জন্য বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ ভিড় করে। এছাড়া বিভিন্ন রাইডে বাচ্চাদের আনন্দ করতে দেখা যায়। এখানে কেউবা আসে নির্মল বাতাস গ্রহণের জন্য। অনেকে বেঞ্চে বসে টিভি দেখে। তবে সবচেয়ে বেশি আকর্ষন ফ্রি ইন্টারনেট সুবিধা। তরুণ-তরুণীদের বড় একটি অংশ ইন্টারনেট ব্যবহারের জন্য আসে পর্কে। ইচ্ছেমত প্রযুক্তির আধুনিক সুযোগ সুবিধা গ্রহণ করা যায় এখানে।

কলেজ ছাত্রী ফারহানা সুলতানা ও সাদিয়া বৃষ্টি বলেন, সব সময় ইন্টারনেট কিনে ব্যবহার করা যায় না। তাই সম্পূর্ণ ফ্রি ওয়াইফাই সুবিধা ভোগ করতেই পার্কে আসা। এতে করে সহজেই প্রযুক্তির মাধ্যমে সারা পৃথিবীর সাথে সম্পৃক্ত হওয়া যায়। জানা যায় বিশ্বের কোথায় কি ঘটছে।

রিয়াজ রহমান, জয় দত্ত, আরিফ সাকিল ও সুমন হোসেন বলেন, এতবড় এলইডি টিভিতে ছবি দেখার মজাই আলাদা। তাই তারা বন্ধুরা মিলে বিকেল হলে পার্কে আসেন।

ব্যংক কর্মকর্তা মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, এই শহরে বিগত দিনে হাঁটা বা অনুশীলনের কোন নির্দিষ্ট স্থান ছিল না। পার্কটি হওয়াতে ইচ্ছেমত শরির চর্চা করা যায়। একইসাথে পাবিারিক পরিবেশেও ভ্রমনের সযোগ তৈরি হয়েছে।

লালমোহন পৌর মেয়র এমদাদুল ইসলাম তুহিন বলেন, বিগত দিনে এখানে বিনোদনের কোন ব্যবস্থা ছিলোনা। এখানকার বাসিন্দারা জেলা সদর বা অন্য উপজেলায় যেত বেড়ানোর জন্য। এই পার্কে বিশেষ করে ফ্রি ইন্টারনেট অনেককেই আগ্রহী করে তোলে সজীব ওয়াজেদ জয় ডিজিটাল পার্কে বেড়াতে। এছাড়া সর্ববৃহৎ এলইডি টিভিতে মুভি, খবরসহ বিভিন্ন বিনোদনের ব্যবস্থা রয়েছে।

 

নতুনসময়.কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন: