৩ পৌষ ১৪২৪, সোমবার ১৮ ডিসেম্বর ২০১৭, ৩:৩৫ পূর্বাহ্ণ
bangla fonts
facebook twitter google plus rss
Natun Somoy logo

ভেড়া পালন করে স্বাবলম্বী টেইপুরের আশাবুল


০৫ ডিসেম্বর ২০১৭ মঙ্গলবার, ০১:৩৭  পিএম

নতুনসময়.কম


ভেড়া পালন করে স্বাবলম্বী টেইপুরের আশাবুল

চুয়াডাঙ্গায় গাড়ল ভেড়া পালন করে স্বাবলম্বী জীবন যাপন করছেন সদর উপজেলার টেইপুর নতুন পাড়ার আসাবুল। চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার টেইপুর নতুন পাড়ার আবু বক্করের ছেলে আসাবুল হক একসময় বাঁশের মুথা তুলে বিক্রি করে সংসারের চাহিদা মেটাতেন। পরবর্তীতে ভেড়ার বাচ্চা কিনে পুষতে শুরু করেন। একে একে তার অসংখ্য ভেড়া হয়। এখন তিনি ভেড়ার খামারের মালিক।

জানা গেছে, ২০০৯ সালের দিকে এনজিও হতে ৩০ হাজার টাকা ঋণ নিয়ে ১০টি গাড়ল ভেড়া কেনেন। পরের মাসে ১৫টি বাচ্চা ভেড়ার জন্ম হয়। এভাবেই দিন দিন বাড়তে থাকে ভেড়া। তৈরি করেন ভেড়ার খামার। এছাড়াও তিনি খামার তৈরির লক্ষ্যে চুয়াডাঙ্গা যুব উন্নয়ন থেকে প্রশিক্ষণ নেন। বর্তমানে তার খামারে দু’শতাধিক ভেড়া আছে যার মূল্য আনুমানিক ১৫ লাখ টাকা।

আশাবুল হক বলেন আমার সংসারের অভাব দূর হয়েছে। আজ আমি স্বাবলম্বী। সেই সঙ্গে এলাকার অনেকেই আমার খামারে কাজ করছে। আমি হাজার প্রতিঘাতের মধ্যেও স্বপ্ন দেখেছি খামার তৈরি করবো তা করতে পেরেছি।

তিনি বলেন, আমার ইচ্ছে ভেড়া খামারের সঙ্গে সঙ্গে গরুর ফার্ম করবার। সেই লক্ষ্যে আমি গরু রাখার জন্য শেড তৈরি করেছি।

এদিকে, ইমান আলী, কুড়ুন আলী, ফিজুল হোসেন ও আরশাদ মণ্ডল বলেন, অশিক্ষিত হতদরিদ্র আশাবুলের এই উদ্যোগকে আমরা সাধুবাদ জানাই। তার এই উদ্যোগে অনুপ্রাণিত হয়ে এলাকার শিক্ষিত বেকার যুবকেরা সরকারি প্রশিক্ষণ নিয়ে গাড়ল ভেড়াসহ গরুর খামার করে বেকারত্বের অভিশাপ থেকে মুক্তি হতে পারে।

নতুনসময়.কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন: