৩১ শ্রাবণ ১৪২৫, বৃহস্পতিবার ১৬ আগস্ট ২০১৮, ৪:৫৪ পূর্বাহ্ণ
bangla fonts
facebook twitter google plus rss
Natun Somoy logo

ভাষা দিবসে ভারতে হাসিনার ও বাংলাদেশে মমতার ছবি টাঙানো হবে  


১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ রবিবার, ১১:১০  এএম

কলকাতা করেসপন্ডেন্ট

নতুনসময়.কম


ভাষা দিবসে ভারতে হাসিনার ও বাংলাদেশে মমতার ছবি টাঙানো হবে  

এক জাতি, এক ভাষা, এক সংস্কৃতি। শুধু মাঝখানে কাঁটাতারের বেড়া। মাতৃভাষার টানে দুই বাংলার সেই ব্যবধান ঘোচাতে উদ্যোগী হয়েছে বাংলাদেশ ও ভারত।

এবার আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে পেট্রাপোল ও বেনাপোল সীমান্তের জিরো পয়েন্টে দু’দেশের একটি মঞ্চ তৈরি হবে। আর সেখানেই উদযাপিত হবে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস। এর জন্য সীমান্তের দু’পাশে একই ধরনের হোর্ডিং তৈরি করা হচ্ছে। শুধু বদলাচ্ছে ছবির মুখ।

পশ্চিমবঙ্গের হাবড়া থেকে বনগাঁ হয়ে সীমান্ত পর্যন্ত বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবিতে সেজে উঠবে। আবার রাজ্যটির মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবি থাকবে বাংলাদেশের বেনাপোল থেকে যশোর পর্যন্ত। ভাষা দিবসের অনুষ্ঠানের মধ্যমণি হয়ে উঠবেন দুই বাংলার দুই অগ্নিকন্যা।

দিবসটি উপলক্ষে প্রতি বছরই বাংলাদেশ–ভারত সীমান্ত লাগোয়া অঞ্চলে আলাদাভাবে তৈরি হয় মঞ্চ। ভারত সরকারের তরফ থেকে মঞ্চ তৈরি হয় পেট্রাপোলে। আর বেনাপোলে তৈরি হয় বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে। বাঙালির অনুষ্ঠান হলেও দুই মঞ্চে চলে দু’দেশের পৃথক অনুষ্ঠান। এই দূরত্ব ঘোচাতে গত বছর প্রথম সীমান্তের জিরো পয়েন্টে দু’দেশের পক্ষ থেকে একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। তা সফল হওয়ায় এবার জিরো পয়েন্টেই একযোগে ভাষা দিবস পালিত হবে।

এখন থেকে প্রতি বছর ভাষা দিবস একই মঞ্চে উদযাপনের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন দু’দেশের প্রতিনিধিরা। রাজ্য প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, একই মঞ্চে দু’দেশের জনপ্রতিনিধি এবং শিল্পীদের আমন্ত্রণ জানানো হবে। নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকবে বর্ডার সিকিউরিটি ফোর্স (বিএসএফ) এবং বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)।

রাজ্যের খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক জানান, গতবছর একসঙ্গে অনুষ্ঠান করা হয়েছিল, তবে ছোট করে। এই প্রথম বড় আকারে একই মঞ্চে দুই বাংলার অনুষ্ঠান হবে। যৌথ অনুষ্ঠান হওয়ায় ‘দুই বাংলা মৈত্রী সমিতি’র নামে আমন্ত্রণপত্র ছাপানো হচ্ছে।

বিএস

নতুনসময়.কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন: