৩ অগ্রাহায়ণ ১৪২৪, শুক্রবার ১৭ নভেম্বর ২০১৭, ১১:৪৬ অপরাহ্ণ
bangla fonts
facebook twitter google plus rss
Natun Somoy logo

দিল্লিতে ফের ধোঁয়াশা


১৩ নভেম্বর ২০১৭ সোমবার, ১০:০৬  এএম

নতুনসময়.কম


দিল্লিতে ফের ধোঁয়াশা

দুদিন পরিস্কার থাকার পর ভারতের রাজধানী দিল্লির আকাশ ফের ধোঁয়াশায় ছেয়ে গেছে। সে কারণে অনেকেই কাশি, বুকে অস্বস্তি, চোখ জ্বালা নিয়ে চিকিৎসকের দ্বারস্থ হয়েছেন।

এদিকে, ধোঁয়াশার কারণে ইউনাইটেড এয়ারলাইন্স নিউইয়র্ক থেকে দিল্লিগামী ফ্লাইট সোমবার পর্যন্ত বাতিল করেছে। অন্যান্য এয়ারলাইন্সও তাদের ফ্লাইট বাতিল করতে পারে বলে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম খবর দিয়েছে।

এছাড়া রোববার দিল্লিগামী অনেক ট্রেন বাতিল করা হয়েছে।

এ পরিস্থিতিতে ১৫ বছরের পুরনো পেট্রোলচালিত গাড়ি ও ১০ বছরের পুরনো ডিজেলচালিত গাড়ি চলাচলে অবিলম্বে নিষেধাজ্ঞা জারি করতে দিল্লি সরকারকে নির্দেশ দিয়েছে জাতীয় পরিবেশ আদালত। পাশাপাশি রাস্তার ধারে গাড়ি পার্ক করা বন্ধেও কঠোর পদক্ষেপ নিতে দিল্লি সরকার ও পৌরসভাকে নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। তবে দিল্লিতে দূষণের জন্য বার বার গাড়ির ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করায় ক্ষুব্ধ হয়েছে গাড়ি মালিকদের একাংশ।

আইআইটি (কানপুর)-এর একটি সমীক্ষায় দেখা গেছে, এই মুহূর্তে দিল্লিতে মোট গাড়ির সংখ্যা এক কোটির কিছু বেশি, যা দিল্লির বায়ু দূষণের ৯ শতাংশের জন্য দায়ী। ওই ৯ শতাংশের এক-তৃতীয়াংশ আবার হয়ে থাকে ৬৫ লাখ মোটরসাইকেল ও প্রায় ৮৫ হাজার অটোরিকশার কারণে। আর ব্যক্তিগত গাড়ির কারণে দূষণের পরিমাণ মোট দূষণের ১০ শতাংশ। সে কারণে দিল্লি ও সংলগ্ন এলাকায় ৬৫ লাখ মোটরসাইকেল চলাচল বন্ধ করার সুপারিশ করেছে একাধিক মহল।

এদিকে, পরিবেশবিদরা বলছেন, যতদিন দিল্লি ও সংলগ্ন এলাকায় ফসলের গোড়া পোড়ানো, ইটভাটা, পাথর ভাঙা, আর্বজনা জ্বালানো বন্ধ করা না হবে, ততদিন দূষণের সমস্যা থেকেই যাবে। পাশাপাশি নির্মাণ কাজ, ডিজেল জেনারেটরের চালানোর ক্ষেত্রে নিয়ম না মানায় দিল্লির পরিস্থিতিকে আরো খারাপ করে তুলেছে।

রোববার দিল্লিতে ভাসমান কণার পরিমাণ ছিল স্বাভাবিকের তুলনায় বহু গুণ বেশি। মানবদেহের জন্য ক্ষতিকর এই কণার কারণে গত সাত দিনে শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যা, চোখ ও গলা জ্বালা, কাশির উপসর্গ নিয়ে রোগী আসার সংখ্যা কয়েক গুণ বেড়ে গেছে বলে এইমস হাসপাতালের চিকিৎসক রণদীপ গুলেরিয়া জানিয়েছেন।

আবহাওয়া অধিদপ্তর জানাচ্ছে, অন্যান্য বারের তুলনায় এবার দিল্লিতে দ্রুত পারদ নামছে। শনিবার দিল্লির ন্যূনতম তাপমাত্রা ১৩ ডিগ্রিতে নেমে এলেও বাতাসে জলীয় বাষ্পের পরিমাণ ছিল প্রায় ৯৮ শতাংশ। অতিরিক্ত জলীয় বাষ্প ও বাতাসে দূষিত কণার জন্যই তৈরি হচ্ছে ধোঁয়াশা।

আবহাওয়া অধিদপ্তর জানাচ্ছে, মঙ্গল ও বুধবার দিল্লি ও সংলগ্ন এলাকায় হাল্কা বৃষ্টি হতে পারে। আবহাওয়াবিদেরা মনে করছেন, এতে কুয়াশা বাড়লেও বাতাসে দূষণের স্তর কিছুটা হলেও কমে যাবে। ধোঁয়াশাও কমবে।

নতুনসময়.কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন: