৩ পৌষ ১৪২৪, সোমবার ১৮ ডিসেম্বর ২০১৭, ৩:৩৬ পূর্বাহ্ণ
bangla fonts
facebook twitter google plus rss
Natun Somoy logo

দর্শকদের চিৎকারে বিভ্রান্ত রোবট সোফিয়া


০৬ ডিসেম্বর ২০১৭ বুধবার, ০৮:৩০  পিএম

নতুনসময়.কম


দর্শকদের চিৎকারে বিভ্রান্ত রোবট সোফিয়া

বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলনকেন্দ্রে বুধবার বিকেলে দর্শকের জন্য দুই ঘণ্টা সময় রেখেছিল রোবট সোফিয়া। কিন্তু সব মিলিয়ে ৪০ মিনিটের বেশি সে তাদের সামনে থাকতে পারেনি।

কারণ তাদের হৈ চৈ ও চিৎকারে সোফিয়া ঠিক করতে পারছিল না কার প্রশ্নের জবাব দেবে– উপস্থাপক না দর্শকদের। ১০ মিনিটের কিছু বেশি সময় স্থায়ী হওয়া এ পর্বে মাত্র কয়েকটি প্রশ্নের জবাব দিয়ে মঞ্চ থেকে সরে যায় সোফিয়া।

বুধবার দুপুর আড়াইটা থেকে বিকেল সাড়ে চারটা–এই ২ ঘণ্টা দর্শকদের জন্য ‘বরাদ্দ’ রেখেছিল সোফিয়া। কথা ছিল মঞ্চে সোফিয়ার কথা শুনবেন তারা। দর্শকদের প্রশ্ন করার কোনো সুযোগ ছিল না এ পর্বে।

প্রশ্নোত্তর পর্ব শুরু হওয়ার আগে অনুষ্ঠানের উপস্থাপক গাউসুল আলম শাওন সোফিয়ার নির্মাতা ডেভিড হ্যানসনের সঙ্গে আলাপচারিতায় মেতে ওঠেন। এ পর্বে হ্যানসন সোফিয়ার নির্মাণ কাহিনি বর্ণনা করেন। তিনি বলেন, তিনি রোবটকে মানুষের কাজের বিকল্প বা প্রতিযোগী হিসেবে তৈরি করেননি। বরং মানুষের সহযোগী হিসেবে তৈরি করছেন। ফলে কখনোই রোবট মানুষের প্রতিদ্বন্দ্বী হবে না।

সোফিয়াকে মঞ্চে নিয়ে আসা হয় দুপুর ২টা ৪০ মিনিটের দিকে। সোফিয়াকে প্রশ্নোত্তর পর্বের জন্য প্রস্তুত করতেই কিছু সময় চলে যায়। এরইমধ্যে দর্শকের চাপ বাড়তে থাকে, এক পর্যায়ে শুরু হয় হৈ চৈ, চিৎকার। এ পর্বে সোফিয়াকে প্রশ্ন করেন উপস্থাপক শাওন। প্রশ্ন জোরে হলেও সোফিয়ার নিচুস্বরের উত্তর দর্শকদের কান পর্যন্ত না পৌঁছানোয় তাদের চিৎকার আরো বাড়তে থাকে।

এ দেশে কেমন লাগছে–এই প্রশ্নের জবাবে সোফিয়া বলে, ‘আমি আনন্দিত, অভিভূত।’ সে বলে, জামদানি এ দেশের মানুষের এবং এটা তাদের অধিকারও। এজন্যই মনে হয় আমাকে জামদানির কাপড় পরানো হয়েছে। এসময় সোফিয়ার পরনে ছিল হলুদ-সাদা রঙের জামদানি টপস ও স্কার্ট।

সোফিয়াকে ডিজিটাল বাংলাদেশ, ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড, সোফিয়ার জোডিয়াক সাইন ইত্যাদি নিয়ে প্রশ্ন করা হয়। কিন্তু উত্তর ঠিক বোঝা যায়নি। এক প্রশ্নের জবাবে সোফিয়া বলে, ‘আমরা মানুষের রিপ্লেস হতে নয়, সহযোগী হতে এসেছি।’

এসময় মঞ্চে আসেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। তখন সোফিয়ার কাছে জানতে চাওয়া হয় সে প্রতিমন্ত্রী সম্পর্কে কিছু জানে কিনা। সোফিয়া বলে, জুনাইদ আহমেদ পলক, আইসিটি ডিভিশনের প্রতিমন্ত্রী। পলকও সোফিয়াকে প্রশ্ন করেন। তিনি এ সময় শুভেচ্ছা স্মারক হিসেবে সোফিয়াকে নৌকা উপহার দেন।

নতুনসময়.কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন: