৭ শ্রাবণ ১৪২৫, রবিবার ২২ জুলাই ২০১৮, ১২:৩১ অপরাহ্ণ
bangla fonts
facebook twitter google plus rss
Natun Somoy logo

গাজার দীর্ঘতম সুড়ঙ্গটি ধ্বংস করেছে ইসরায়েল


১৬ এপ্রিল ২০১৮ সোমবার, ১২:৩০  পিএম

নতুনসময়.কম


গাজার দীর্ঘতম সুড়ঙ্গটি ধ্বংস করেছে ইসরায়েল

ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকায় একটি সুড়ঙ্গপথ ধ্বংস করে দিয়েছে দখলদার ইসরাইলের সেনাবাহিনী। গাজায় চলতি মাসে এ নিয়ে পাঁচটি সুড়ঙ্গ গুঁড়িয়ে দেয়া হলো।

সর্বশেষ ধ্বংস করা সুড়ঙ্গটি এখন পর্যন্ত খুঁজে পাওয়া ফিলিস্তিনি সুড়ঙ্গগুলোর মধ্যে সবচেয়ে গভীর ও দীর্ঘ বলে জানিয়েছেন ইসরাইলের প্রতিরক্ষমন্ত্রী এভিগদর লিবারম্যান।

দশকের পর দশক ফিলিস্তিনকে অবরুদ্ধ করে রেখে এর সঙ্গে বাইরের দুনিয়ার সব যোগাযোগ বন্ধ করে রেখেছে ইসরাইল।

এ অবস্থায় খাবার ও জরুরি ওষুধ সরবরাহের জন্য মাটির নিচে বিভিন্ন সুড়ঙ্গপথ তৈরি করেছে ফিলিস্তিনি স্বাধীনতাকামী সংস্থাগুলো।

তবে যখনই কোনো সুড়ঙ্গের সন্ধান পাচ্ছে ইসরাইলি বাহিনী, তখনই তারা হামলে পড়ে এসব রাস্তা ধ্বংস করে দিচ্ছে।

ইসরাইলি সেনাবাহিনীর মুখপাত্র জোনাথন কনরিকাস জানান, গত সপ্তাহে ধ্বংস করা সুড়ঙ্গটি ২০১৪ সালের গাজা যুদ্ধের সময় খোঁড়া হয়। ওই যুদ্ধের সময় ইসরাইল ৩০টিরও বেশি সুড়ঙ্গ ধ্বংস করে দিয়েছিল।

কেউ যেন আর কোনো সুড়ঙ্গ নির্মাণ করতে না পারে, সে জন্য কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণের হুশিয়ারি দেন এই ইসরাইলি সেনা কমান্ডার।

তার দাবি, ফিলিস্তিনের প্রতিরোধ সংস্থা হামাস হামলার উদ্দেশ্যে এ সুড়ঙ্গটি খুঁড়েছে। সুড়ঙ্গটি গাজা উপত্যকার উত্তরাঞ্চলীয় জাবালিয়া অঞ্চল থেকে শুরু হয়ে ইসরাইলি নাহাল ওজি শহরের কয়েক মিটার পর্যন্ত প্রবেশ করেছে বলে জানান তিনি।

তবে সুড়ঙ্গটির বের হওয়ার কোনো পথ নির্মাণ করা হয়নি। হামলার সুবিধার্থে এই সুড়ঙ্গটির সঙ্গে আরেকটি সুড়ঙ্গ জোড়া দেয়া ছিল বলেও জানান এ ইসরাইলি সেনা।

গত সপ্তাহেই ইসরাইলি বাহিনী সুড়ঙ্গটির ভেতর বিভিন্ন বস্তু ঠেসে দেয় যেন দীর্ঘদিন এটি কেউ ব‍্যবহার করতে না পারে। গাজায় চলতি মাসে এ নিয়ে পাঁচটি সুড়ঙ্গ ধ্বংস করা হল।

গাজা উপত্যকায় গোপন সুড়ঙ্গের শনাক্তে গত বছর থেকে বিশেষ উপকরণ নিয়ে মাঠে নেমেছিল ইসরাইল। এবার তারা নতুন সুড়ঙ্গ নির্মাণ প্রতিরোধে শুধু মাটির ওপরে নয়; বরং সীমান্তবর্তী অঞ্চলগুলোয় মাটির নিচেও হাইটেক সীমান্তবেষ্টনী স্থাপন করতে শুরু করেছে। সূত্র : বিবিসি বাংলা।

পিডি

নতুনসময়.কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন: