৭ আষাঢ় ১৪২৫, বুধবার ২০ জুন ২০১৮, ১১:৫৪ পূর্বাহ্ণ
bangla fonts
facebook twitter google plus rss
Natun Somoy logo

এমন একটা তু‌মি চাই


২১ মে ২০১৮ সোমবার, ০৪:৫৪  পিএম

মুসা আহমেদ

নতুনসময়.কম


এমন একটা তু‌মি চাই

সাথী: কি করেন?
রূপল: খাচ্ছি।
সাথী: একা একা খেতে হয়না। সাথে কেউ
একজন থাকলে তাকেও দিতে হয়।
রূপল: সিগারেট খাচ্ছি। খাবেন?
সাথী: ছিঃ ছিঃ। আপনি এই সব খান!
রূপল: হুম, খাই তো।
সাথী: সেদিন না বললেন আপনি এই সব খান না।
রূপল: সেদিন মিথ্যা বলেছিলাম।
সাথী: কিন্তু কেনো মিথ্যা বললেন?
রূপল: আপনি যাতে মনে করেন আমি ভালো
মানুষ।
সাথী: তাহলে আপনি কি খারাপ মানুষ?
রূপল: লোকজন বলে, তাই এখন আমিও বলি।
সাথী: তাহলে আপনি খারাপ কেনো?
রূপল: জানি না। এমনি খারাপ।
সাথী: তাহলে ভালো হয়ে জান না কেনো?
রূপল: চেষ্টা করি না তাই হইনা।
সাথী: তাড়াতাড়ি ভালো হয়ে যান। ভালো হতে
কিন্তু পয়সা লাগে না। জানেন তো?
রূপল: তাহলে কি লাগে?
সাথী: ভালোবাসা আর ভালো একটা মন লাগে।
রূপল: আমার কাছে এই দুইটার কোনোটাই নেই।
সাথী: তাহলে আপনি তো মানুষের মধ্যে নেই।
রূপল: একদম ঠিক বলছেন।
সাথী: ঘোড়ার ডিম বলছি।
রূপল: কে ঘোড়ার ডিম?
সাথী: আপনি ঘোড়ার ডিম।
রূপল: আপনি ভাজি করে খান।
সাথী: আমি ডিম খাই না।
রূপল: তাহলে রাতে ঘুমানোর আগে মুখে মাখেন।
সাথী: আমি আপনার মতো এতো রূপচর্চা করি না।
রূপল: হা হা হা হা হা। আমি কি মেয়ে মানুষ যে
রূপচর্চা করবো?
সাথী: এখন থেকে করবেন।
রূপল: এখন থেকে করবো কেনো?
সাথী: কারণ, আপনি অনেক ক্ষেত।
রূপল: বাংলাদেশ যেহেতু কৃষি প্রধান দেশ তাই
এদেশে দুই একজন ক্ষেত থাকতেই পারে।
কি বলেন?
সাথী:হি হি হি হি। আপনি আসলেই ক্ষেত ??
রূপল: আপনার হাসিটা অনেক সুন্দর।
সাথী: সুন্দর না ছাই একদম প্যাঁচ।
রূপল: না, আমি সত্যি বলছি অনেক সুন্দর।
সাথী : বাদ দেন তো এই বিষয়টা।
রূপল: আচ্ছা বাদ দিলাম। তবে আপনার হাসিটা
সুন্দর।
সাথী: আপনি কি পাগল? সত্যি বলেন তো আপনি
সিগারেট খান?
রূপল: আপনি যেহেতু বলছেন তাহলে খাবো না।
সাথী: তাহলে আপনি সিগারেট খান।
রূপল: আজ পর্যন্ত কখনো খাইনি। তবে ভবিষ্যতে
হয়তো খাও লাগতে পারে।
সাথী: কেনো ভবিষ্যতে খেতে হবে?
রূপল: ছেলেদের সিগারেটে খাওয়ার পিছনে
মেয়েদের থেকে দুঃখ পাওয়ার কারণ
তাই ভবিষ্যতে খেতে পারি।
সাথী: কেনো আপনি কি রেডি হয়ে আছেন দুঃখ
পাওয়ার জন্যে?
রূপল: যদিও আমার জীবনে কোনো মেয়ে মানুষ
আসেনি, তাই রেডি হওয়া কোনো কারণও
নাই।
সাথী: এখন থেকে রেডি হয়ে জান।
রূপল: মানে কি?
সাথী: মানে আমি আপনার জীবনে এসে গেছি তাই।
রূপল: আপনার কথা শুনে হাসি পেলো।
সাথী: কেনো?
রূপল: আমার দাদুর কাছে শুনতাম আগের যুগে
নাকি বাড়িতে ডাকাত আসতো তারিখ দিয়ে
ডাকাতি করার জন্যে। তাই আপনিও
ঠিক তাই তারিখ দিয়ে আসতে চান নাকি
যে আমি রেডি থাকবো?
সাথী: হা হা হা হা হা। আপনি তো দারুণ মজার
মজার কথা জানেন।
রূপল: কই কথা জানি? আমি তো শুধু আপনার
কথার উত্তর দিলাম।
সাথী: না না আমার কারণে কোনদিন
আপনার সিগারেটে খেতে হবে না।
আর মেয়েদের কারণে সিগারেট খেতে
এই ধারণা আমি পালটিয়ে দিবো
আপনার। তবে একটা শর্ত আছে।
রূপল: কি শর্ত বলেন?
সাথী: অনেক মেয়েদের ধারণা ছেলেদের কারণে
চোখের জলে বালিশ ভিজে মেয়েদের।
আপনিও এই ধারণাটা পালটিয়ে দিবেন
কি দিবেন না?
রূপল: অবশ্যই দিবো।
সাথী:: তবে আমরা কিন্তু সারাজীবন দুজন দুজনকে
আপনি বলে সমধর করবো কি বলেন?
একটু অভিমান করে বললো সাথী।
রূপল: হুম। আপনি একদম ঠিক বলছেন।
সাথী: আবারও আপনি বললেন আমাকে? (রেগে বললো)
রূপল: হা হা হা হা হা হা হা। আচ্ছা আর বলবো না
সাথী: এই তো ঠিক আছে।
রূপল: আচ্ছা তাহলে আজকের মতো যাই।
সাথী: যাই না বলো আসি।
রূপল: আচ্ছা আসি তাহলে।
সাথী: আই মিস ইউ।
রূপল: আই মিস ইউ টু। রূপল আর বলতে
বলতে পারলো না।
সাথী: কি বলো শুধু একটু রেগে বলো মেয়েটি?
রূপল: না মানে বলতে চেয়েছিলাম আমি আমি...
সাথী: কি বলতে চেয়েছিলে? আমি আমি...
রূপল: না মানে বলতে চেয়েছিলাম...আই লাভ ইউ।
সাথী: হেসে দিয়ে বললো আই লাভ ইউ।

-------শিউলি আক্তার শিলা

নতুনসময়.কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন: