৮ অগ্রাহায়ণ ১৪২৪, বৃহস্পতিবার ২৩ নভেম্বর ২০১৭, ৪:১৫ পূর্বাহ্ণ
bangla fonts
facebook twitter google plus rss
Natun Somoy logo

উপযুক্ত জীবনসঙ্গী মিলবে ফেসবুকেই


১৪ নভেম্বর ২০১৭ মঙ্গলবার, ১০:২৩  এএম

নতুনসময়.কম


উপযুক্ত জীবনসঙ্গী মিলবে ফেসবুকেই

ফেসবুকের সুবাধেই উপযুক্ত জীবনসঙ্গী বা সঙ্গিণীকে খুঁজে নেওয়া এবং তার হৃদয় জয় করে নিতে পারেন। তবে কীভাবে ফেসবুকে খুঁজে নেবেন মনের মানুষকে? এই বিষয়ে জেনে নিন ৮টি বিশেষ তথ্য-

১. লেখার পরিবর্তে ছবির মাধ্যমে নিজেকে অভিব্যক্ত করার চেষ্টা করুন। স্টেটাসের তুলনায় ছবি সবসময় অধিক সংখ্যক মানুষের নজর কাড়ে। ফলে আপনার ভালোবাসার মানুষের চোখে পড়াও সহজতর হয়। কাজেই কোনো রেস্তোরাঁয় খেতে গেলে, সেই নিয়ে স্টেটাস দেওয়ার পরিবর্তে খাবার ভর্তি প্লেটের ছবি পোস্ট করুন, লোকের চোখে পড়বে বেশি।

২. আপনার কর্মস্থল, পেশা বা কোন পদে আপনি রয়েছেন, নিজের প্রোফাইলে তা স্পষ্টভাবে উল্লেখ করুন। প্রেমের বাজারে ভালো চাকরির দাম অস্বীকার করার উপায় নেই।

৩. আপনি কি সুদর্শন, কিংবা মোহময়ী সুন্দরী? তা যদি না হন, তাহলে শুধু প্রোফাইল পিকের জোরে কারোর মন জয় করার সম্ভাবনা কম। কাজেই মন দিন স্টেটাসের উপর। আপনি যা ভালোবাসেন, যে বিষয়ে আপনি আত্মবিশ্বাসী, স্টেটাস দিন সেই বিষয়ের উপরেই। কবিতা পড়তে যদি ভালো না বাসেন, তাহলে আলটপকা কবিতার লাইন কোট করে লোক ঠকিয়ে লাভ নেই।

৪. স্মার্টনেস অবশ্যই জরুরি, কিন্তু ওভারস্মার্ট হতে গেয়ে পুরো বিষয়টা গুলিয়ে ফেলবেন না। কোনো মেয়ের সঙ্গে চ্যাট করার সময়ে ‘হাই হটি’ মার্কা কথা দিয়ে আলাপ জমাতে গেলে অধিকাংশ মেয়েই তাতে বিরক্ত বোধ করে। তার চেয়ে শুধু ‘হাই’ কথা শুরু করার পক্ষে যথেষ্ট।

৫. নিজের বাড়ির কাছাকাছি মেয়ে বা ছেলেদের সঙ্গে আলাপ জমানোর চেষ্টা করুন। তাতে সোশ্যাল মিডিয়ার গণ্ডির বাইরে গেয়ে বাস্তবে দেখাশোনার কাজটা সহজ হয়। মেয়েটিও সুরক্ষিত বোধ করে।

৬. ফোন নাম্বার জোগাড় করার ক্ষেত্রে ‘তুমি কি হোয়াটস অ্যাপে আছ?’ মার্কা প্রশ্ন পুরনো হয়ে গেছে। আপনি ওই ধরনের প্রশ্ন করে নিজেকে সস্তা করবেন না। তার চেয়ে সরাসরি বলুন, ‘তোমার সঙ্গে একটু কথা বলতে চাই। ফোন নাম্বারটা পেতে পারি?’ সে কী উত্তর দিচ্ছে, তার ভিত্তিতে আপনার প্রতি তার মনোভাবটা বুঝাও সহজ হবে।

৭. কাউকে আপনার ভালো লাগতেই পারে, কিন্তু তাই বলে তার বিরক্তির কারণ হয়ে উঠবেন না। আপনার তরফ থেকে দু’একটা ‘হাই’, ‘হ্যালো’-তে যদি সাড়া না পান, তাহলে বুঝতে হবে, আপনার আশা কম। সেক্ষেত্রে দিবারাত্র তাকে মেসেজ করে তার মনোভাব আপনি বদলাতে পারবেন না।

৮. কাউকে ভালো লাগলে আলাপ একটু এগুনোর পরেই আপনার মনোভাব তাকে বুঝতে দিন। আলাপের দু’দিনের মাথায় সরাসরি প্রোপোজ করাটা বাড়াবাড়ি, কিন্তু তাকে যে আপনার ভালো লেগেছে, সে সম্পর্কে হালকা আভাস অন্তত দিন। না হলে একবার যদি সে আপনাকে নিছক বন্ধু বলে ভাবতে শুরু করে, তাহলে ‘বন্ধু’ থেকে ‘প্রেমিক’ হয়ে ওঠাটা কিন্তু প্রায় অসাধ্যসাধনের সামিল হবে। কাজেই প্রথম থেকেই আভাস দিন যে, আপনার মনে তার আসন কোথায়।

নতুনসময়.কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন: